২১ সেপ্টেম্বর ২০১৭ ইং

রগতির সন্ধান পেতে বাঙালি জাতির দারুন বিলম্ব হবে

মুক্তচিন্তা : ছোট ছোট ভুল গুলি

প্রতিবেদকঃ মোনাজ হক তারিখঃ 2017-01-11   সময়ঃ 00:33:08 পাঠক সংখ্যাঃ 206

আমরা পশ্চিমা ধনতান্তিক দেশগুলোকে অনুসরণ করি তাদের মতো উন্নত হওয়ার জন্যে, এটাই স্বাভাবিক। কিন্তু তারা শুধু শিল্প-বাণিজ্যে উন্নতি আর অর্থনৈতিক সম্মৃদ্ধি করাই শেখায় না, শিক্ষা ও জনসেবাকে কি ভাবে তারা মূল্যায়ন করে তা আমাদের ধারণার বাইরে। সম্প্রতি ভোক্স ওয়াগন কোম্পানির ডিজেল মোটর কারে এক ছোট্ট সফ্ট ওয়ার এর ত্রুটি ধরা পড়ায়, তাৎক্ষণিক ভাবে প্রায় অর্ধ মিলিয়ন মোটর গাড়ি সারা পৃথিবী থেকে কল-ব্যাক করেছে ও গাড়ির মালিকদেরকে বীণে পয়সায় ত্রুটি পূর্ণ গাড়ি সারাবার আমন্ত্রণ জানিয়েছে কোম্পানিটি, তাতে হয়তো ৫০০ মিলিয়ন ইউরো খরচ হবে ভোক্স ওয়াগন কোম্পানির কিন্তু তাতে অসুবিধা নেই, জনসেবা হলো এখানে প্রধান প্রায়োরিটি। আর এই ত্রুটির কারণে ভোক্স ওয়াগন কোম্পানির প্রধান নির্বাহী মার্টিন উইন্টারকর্ন কে চাকুরী ছেড়ে দিতে হয়েছে গত বছর, এবং সরকারি অপরাধ আইন এর আওতায় দন্ড হিসেবে আরো ১ বিলিয়ন ইউরো সরকারের কোষাগারে জমা দিতে হয়েছে ভোক্স ওয়াগন কোম্পানিকে।

কেন তুলছি এই আলাপটি ? আমি এক তুলনামূলক আলোচনায় যেতে চাই. যেহেতু আমরাও উন্নতশীল দেশ থেকে উন্নত দেশের স্বপ্ন দেখাই জনগণকে।

গত ১০ দিন ধরে বাংলাদেশে স্কুলের পাঠ্যবই এ ব্যাপক ভুল ধরা পড়েছে, শুধু ভুল বললে ভুল হবে, বড়ো ধরণের অপরাধ বলা যায়। মৌলিক শিক্ষা ব্যবস্থা হেফাজতিদের পরামর্শে পরিবর্তন করা হয়েছে পাঠ্য বইয়ে। বই এ ভুলের ছড়াছড়ি, পাঠক্রমে মানবিক মূল্যবোধের নিবন্ধ সমূহকে মৌলবার ধর্মীয় কল্পকাহিনী দিয়ে ভরা।

সামাজিক যোগাযোগ মাদ্ধমে এ নিয়ে গত ৭ দিনে অসংখ সমালোকনার ঢেউ বইছে সমালোচনার ঝড় যখন তুঙ্গে তখন ১০ দিন পরে শিক্ষা উপসচিবের নেতৃত্বে তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে কার ভুলে এই কাজটি হয়েছে সেটি খুঁজে বার করার জন্যে। আর আজ খবরে প্রকাশ - এবার আসল কাল্প্রিট খুঁজে পাওয়া গেছে, টেক্সট বইয়ে যে আর্টিস্টট ছাগলের ছবিটি এঁকেছিল তাকে বরখাস্ত করা হয়েছে, তবে শিক্ষামন্ত্রী, শিক্ষাসচিব ও জাতিয় শিক্ষাবোর্ড হয়তো এখনও বিশ্বাস করে যে ছাগল গাছে উঠে আম খায়। কারণ বইগুলি এখনো কল-ব্যাক করা হয়নি, পশ্চিমা দেশ যখন তাদের মোটর গাড়ির ত্রুটির জন্যে মিলিয়ন মোটর গাড়ি কল-ব্যাক করে সেখানে আমাদের জাতীয় শিক্ষার মেরুদন্ড ভেঙে দিলেও ভুল স্বীকার করি না। না হয় ২০ কোটি টাকা বেশি খরচ হবে আবার, তাইবলে কি ভুল শিক্ষা পাবে আমাদের শিশু-কিশোর রা? যে দেশে হাজার কোটি টাকা ব্যাংক থেকে লুটপাট হয় সেদেশে কি আর ২০ কোটি টাকা ব্যয় করে নতুন ভাবে পাঠ বই তৈরী করা যায় না?

DO NOT HEART ANYBODY বানান ভুল ছারাও এই বাক্য টা দিয়ে উনারা কি শিক্ষা দিলেন? Heart, Hate or Hurt - বিষয়টি NCTB পরিষ্কার করতে পারেনি। আর বাংলা বাক্যটি “শিক্ষা নিয়ে গড়ব দেশ, শেখ হাসিনার বাংলাদেশ” এটা কেমন ধরণের বাংলা? NCTB তে কি একজন আর্টিস্ট ই সব কাজ করে? শিক্ষা কনসেপ্ট টাও কি সেই আর্টিস্ট বানিয়েছে? কোথায় গেলো হাজার হাজার শিক্ষা মন্ত্রণালয় ও জাতীয় শিক্ষা বোর্ডের কর্মকর্তাগণ? হতে পারতো "সুশিক্ষায় গড়ব দেশ, মুক্তিযুদ্ধের বাংলাদেশ" দেশটাতো আর শুধু শেখ হাদিনার নয়। মুক্তিযুদ্ধকরেই বাংলাদেশ স্বাধীন হয়েছে, সেটাই কোমলমতি শিদেরকে শিক্ষা দেওয়া উচিত নয়কি? আমার ধারণা, এ কথাটি লিখে এখানে ব্যাপক তেলবাজি করা হয়েছে যা শেখ হাসিনার মতো মহান নেত্রীকে নেতিবাচক অবস্থায় নামিয়ে আনার মতো বিতর্ক সৃষ্টি করেছে। এমন তৈলবাজি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জন্যও বিব্রতকর হওয়ার কথা।

তাই আমার দাবি এই অপরাধের সাথে জড়িতদেরকে শুধু চাকুরী থেকে ছাঁটাই নয় দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দিতে হবে, তা না হলে বাঙালি জাতির সভ্যতার পথে এগিয়ে যাওয়ার সাধনায় এই ধরণের ছোট ছোট ভুল গুলি শুধরিয়ে, প্রগতির সন্ধান পেতে দারুন বিলম্ব হবে।



আজকের কার্টুন

লাইফস্টাইল

আজকের বাংলার মিডিয়া পার্টনার

অনলাইন জরিপ

বাংলাদেশের প্রাইমারি ও মাধ্যমিক শিক্ষা পাঠক্রমে ব্যাপক পরিবর্তন করা হয়েছে জানুয়ারি ২০১৭ তে বিতরণকরা নতুন বইয়ে অদ্ভুত সব কারণ দেখিয়ে মুক্ত-চর্চার লেখকদের লেখা ১৭ টি প্রবন্ধ বাংলা বই থেকে বাদ দেওয়া হয়েছে এবং ইসলামী মৌলবাদী লেখা যোগ হয়েছে, আপনি কি এই পুস্তক আপনার ছেলে-মেয়েদের জন্য অনুমোদন করেন?

 হ্যাঁ      না      মতামত নেই    

সংবাদ আর্কাইভ