২২ এপ্রিল ২০১৮ ইং
সাপ্তাহিক আজকের বাংলা - ৭ম বর্ষ ০৫ সংখ্যা: বার্লিন, সোমবার ২৯জানু–০৪ফেব্রু ২০১৮ # Weekly Ajker Bangla – 7th year 05 issue: Berlin, Monday 29Jan-04Feb 2018

জেএমবির আইটি প্রধানসহ ৪ জঙ্গি আটক

জঙ্গিরা পরিচয় দিয়েছিল তারা নির্মাণ শ্রমিক

প্রতিবেদকঃ বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর তারিখঃ 2017-02-01   সময়ঃ 08:08:54 পাঠক সংখ্যাঃ 374

ঢাকা: রাজধানীর যাত্রাবাড়ি এলাকায় একটি জঙ্গি আস্তানায় র্যাবের অভিযানে জেএমবির সারোয়ার-তামিম গ্রুপের আইটি শাখার প্রধান আশফাক-ই আজমসহ চার জঙ্গিকে গ্রেপ্তার করেছে র্যাব।> বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর
এর আড়ে বুধবার (০১ ফেব্রুয়ারি) ভোররাত থেকে বাসার চারপাশ ঘিরে ফেলে র‌্যাব।  র‌্যাবের মিডিয়া উইংয়ের উপ-পরিচালক মেজর রইসুল আজম জানান যাত্রাবাড়ি  ফ্লাইওভারের পাশের  বাসাটি রাতেই ঘিরে ফেলা হয়।
পরে ভোরের আলো ফোটার আগেই চার জঙ্গিকে আটক করা হয়। এসময় তাদের কাছ থেকে অস্ত্র গুলিসহ বিপুল পরিমান বিষ্ফোরক উদ্ধার করা হয়।
ৠাবের আইন ও গণমাধ্যম শাখার পরিচালক কমান্ডার মুফতি মাহমুদ খান জঙ্গি ‍অভিযান স্থলে সাংবাদিকদের বলেন, জঙ্গিরা যে হারিয়ে যায়নি সেটা জানান দিতেই তাদের এ অবস্থান। বিস্ফোরক ­তৈরির যে ধরনের সরঞ্জাম আমরা দেখতে পেয়েছি  সেগুলো সাধারণত নাশকতায় ব্যবহার হয়ে থাকে।
মুফতি মাহমুদ খান বলেন, গত ২৩ জানুয়ারি জঙ্গিরা এই পাঁচতলা বিল্ডিং-এর দোতলায় বাসাটি ভাড়া নিয়েছিল। বাড়ির মালিক একজন মহিলা। আমরা মালিককে প্রাথমিক জিজ্ঞেস‍াবাদ করেছি বাসাটি কীভাবে তারা ভাড়া নিল- তিনি বলেছেন, জঙ্গিরা পরিচয় দিয়েছিল তারা নির্মাণ শ্রমিক। গুলশানের একটি জায়গায় বিল্ডিং মেরামতের কাজ করত। জঙ্গিদের সবার বয়স ২৫ খেকে ৩০ এর মধ্যে।
বাড়ীর মালিক জঙ্গিদের জিজ্ঞাসা করেছিল কেনো এক তারিখে না নিয়ে এ মাসের মাঝে ২৩ তারিখে তারা বাড়ী ভাড়া চাচ্ছে- এ উত্তরে জঙ্গিরা বলেছে, যেহেতু গুলশানে কাজ শেষ হয়ে গেলে, নতুনভাবে কাজ শুরু করবে, তারা ঠিকা নির্মাণ শ্রমিক, সেক্ষেত্রেই তারা এখানে অবস্থান নিয়েছে এবং বাড়ীওয়ালা সরল বিশ্বাসে তাদের বাড়ীভাড়া দেয় বলে জানানৠাবের আইন ও গণমাধ্যম শাখার পরিচালক।  
তিনি বলেন, এরমধ্যে বাড়ীওয়ালা জঙ্গিদের বলেছিল ডকুমেন্ট দেওয়ার কথা। তখন দিতে পারেনি, বলেছে পরে দেবে, যখন তাদের পরিবার আসবে। বাড়ীর মালিককে পরে আরো জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে বলে তিনি জানান।
এর আগে ধৃত এ জঙ্গিরা আগে কোন নাশকতার সঙ্গে জড়িত ছিল কি-না এমন প্রশ্নে মুফতি মাহমুদ খান বলেন, এখনই এ বিষয়ে কোনো কিছু বলা সম্ভবপর নয়। তৎক্ষণিক আমাদের কাছে যে তথ্য ছিল- আমরা যেহেতু এ নিয়ে কাজ করছি- তদন্ত হচ্ছে- তদন্তের মধ্যেই কিন্তু আমরা জানতে পেরেছি এ আশফাক-ই-আজম ওরেফে আপেল এখন নিয়ন্ত্রণ গ্রহণ করেছে। এর আগে গ্রেফতারকৃত জঙ্গি সারোয়ারের কাছে এতথ্যগুলো আমরা পেয়েছি। দীর্ঘ দিন ধরে আমরা তাকে খুঁজছিলাম। এ মুহুত্বে আসলে বলা সম্ভব নয় তারা কোথাও কোন নাশকত‍ার সঙ্গে  জড়িত ছিল কী-না।



আজকের কার্টুন

লাইফস্টাইল

আজকের বাংলার মিডিয়া পার্টনার

অনলাইন জরিপ

প্রতিবেশী রাষ্ট্র মিয়ানমার রোহিঙ্গা দেরকে অত্যাচার করে ফলে ২০১৭ তে অগাস্ট ২৫ থেকে সেপ্টেম্বর পর্যন্ত ১ মাসে ৫ লক্ষ্য রোহিঙ্গা জাতিগোষ্ঠী বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছে, আপনি কি মনে করেন বাংলাদেশ শরণার্থী দেরকে আবার ফিরে পাঠিয়ে দিক?

 হ্যাঁ      না      মতামত নেই    

সংবাদ আর্কাইভ