২৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ ইং
সাপ্তাহিক আজকের বাংলা - ৭ম বর্ষ ০৫ সংখ্যা: বার্লিন, সোমবার ২৯জানু–০৪ফেব্রু ২০১৮ # Weekly Ajker Bangla – 7th year 05 issue: Berlin, Monday 29Jan-04Feb 2018

‘পোড়া মৃতদেহের রাজনীতি ও সময়ের গল্প’

সাব্বির খানের রাজনৈতিক সমীক্ষা

প্রতিবেদকঃ বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর তারিখঃ 2017-02-02   সময়ঃ 06:03:56 পাঠক সংখ্যাঃ 347

ঢাকা: ‘পোড়া মৃতদেহের রাজনীতি ও সময়ের গল্প’ বিষয়টি খুব সময়পযোগী বললে ভুল হবে না। তাই নিশ্চিত ভাবেই বলা যায়, এ শিরোনামে প্রকাশিত কোনো গ্রন্থে সময়ের প্রতিচ্ছবিই ধরা দেবে। ‘পোড়া মৃতদেহের রাজনীতি ও সময়ের গল্প’ একটি গ্রন্থেরই নাম। সুইডেন প্রবাসী ‘সাব্বির খান’ যেটির লেখক।

বসুন্ধরা আবাসিক এলাকার নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (এনএসইউ) সিন্ডিকেট হলে শুক্রবার (২৭ জানুয়ারি) এক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে গ্রন্থটির মোড়ক উন্মোচন করলেন বিশিষ্টজনরা। 

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন এনএসইউ’র উপাচার্য অধ্যাপক আতিকুল ইসলাম, কথাসাহিত্যিক ও দৈনিক কালের কণ্ঠের সম্পাদক ইমদাদুল হক মিলন, এনএসইউ’র ডেপুটি ডাইরেক্টর বেলাল আহমেদ, সুচিন্তা ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ এ আরাফাত।
গ্রন্থাটির মোড়ক উন্মোচনের পর সাব্বির খান বলেন, দেশের বাইরে থেকে দেশ দেখাটা হচ্ছে স্যাটেলাইটের মতো করে দেখা। তারই প্রতিচ্ছবি ওঠে এসেছে ‘পোড়া মৃতদেহের রাজনীতি ও সময়ের গল্প’ গ্রন্থাটিতে। এটা রেফারেন্স হিসেবে অনেকেই ব্যবহার করতে পারবেন।
এনএসইউ’র উপাচার্য আতিকুল ইসলাম বলেন, এদেশে একটা শ্রেণী আছে, যারা ইনটেলেকচ্যুয়াল। দেশের গানের সঙ্গে, বাংলা গানের সঙ্গে, লালনগীতির সঙ্গে, ইতিহাস সংস্কৃতির সঙ্গে, এদের কোনো সম্পৃক্ততা নেই। এরা শুধু ডিগ্রি অর্জন করেছেন। তারা নিজেদের বিরাট ধারা ‘আঁতেল’ মনে করেন। আর একটা শ্রেণী যারা নিজেদের মনে করেন আমরাই প্রকৃত মুসলিম। এরা এ ধ্যান-ধারণা নিয়ে সৌদি আবর যান। ওখানে ওই ধারারই ডিকটেশন নেন। দেশের জন্য এ শ্রেণীই বেশি ক্ষতিকর। কেননা, ইসলামের দোহাই দিয়ে রাজনীতি করার মতো আন ইসলামিক কাজ সারা দুনিয়ায় আর একটাও নেই।
আতিকুল ইসলাম বলেন, ‘পোড়া মৃতদেহের রাজনীতি ও সময়ের গল্প’ গ্রন্থাটির মত আরো অনেক গ্রন্থের দরকার। কেননা, এ ধরনের গ্রন্থ তরুণ প্রজন্মের মাঝে চিন্তার খোরাক জোগাবে।
ইমদাদুল হক মিলন বলেন, স্বপ্নের সোনার বাংলাদেশকে তছনছ করে দিতে এখনো কিছু মানুষ কাজ করে যাচ্ছে। যারা ’৭৫ সালের ১৫ আগস্ট জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে হত্যা করেছিল। ‘পোড়া মৃতদেহের রাজনীতি ও সময়ের গল্প’ গ্রন্থাটিতে স্বাধীনতা পরবর্তী বিভিন্ন সময়ে দেশের নানা পট পরিবর্তন, ঘটনা নিয়ে লেখা হয়েছে। এটা অবশ্যই রেফারেন্স হিসেবে খুব কাজে দেবে।
১৯৬৬ সালের ৩০ জুলাই জন্মগ্রহণ করেন সাব্বির খান। তার পৈত্রিক নিবাস গোপালগঞ্জ। তিনি ১৯৮৪ সালে নারায়ণগঞ্জ উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এসএসসি এবং ১৯৮৬ সালে সরকারি তোলারাম কলেজ থেকে এইচএসসি পাস করেন। ছিলেন ছায়ানট সংগীত বিদ্যায়াতনে নজরুল সংগীতের ছাত্র। স্বৈরশাসক বিরোধী আন্দোলনের সময় হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদ সরকারে রোষানলে পড়ে তিনি দেশত্যাগে বাধ্য হন। এরপর সুইডেন সরকারের রাজনৈতিক আশ্রয় নেন। ২০০২ সালে সুইডেনের ওরেব্রু ইউনিভার্সিটি থেকে কম্পিউটার সায়েন্সে ডিগ্রি লাভ করেন সাব্বির খান। বর্তমানে তিনি কালের কন্ঠ পত্রিকায় স্ক্যান্ডিনেভিয়ান করেসপন্ডেন্ট হিসেবে সম্পৃক্ত রয়েছেন।
ব্যক্তিগত জীবনে সাব্বির খান রাজনৈতিক বিশ্লেষক ও কলামিস্ট হিসেবে আন্তর্জাতিক অঙ্গনে গ্রহণযোগ্যতায় সমৃদ্ধ। দ্য হাফিংটন পোস্ট, আনন্দবাজার পত্রিকা, জনকণ্ঠ, ইত্তেফাক, বাংলাদেশ অবজারভার, দ্য এশিয়ান এইজ ও কালের কণ্ঠ পত্রিকা এবং বিভিন্ন অনলাইন পত্রিকায় তিনি নিয়মিত লেখেন। এছাড়া সুইডেন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের তালিকাভূক্ত সাংবাদিক হিসেবে ‘দ্য ফরেন প্রেস এসোসিয়েশন-সুইডেন’ এবং ‘সুইডিশ পেন’ এর সদস্যও সাব্বির খান।

ইইউডি/এসএইচ

 



আজকের কার্টুন

লাইফস্টাইল

আজকের বাংলার মিডিয়া পার্টনার

অনলাইন জরিপ

প্রতিবেশী রাষ্ট্র মিয়ানমার রোহিঙ্গা দেরকে অত্যাচার করে ফলে ২০১৭ তে অগাস্ট ২৫ থেকে সেপ্টেম্বর পর্যন্ত ১ মাসে ৫ লক্ষ্য রোহিঙ্গা জাতিগোষ্ঠী বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছে, আপনি কি মনে করেন বাংলাদেশ শরণার্থী দেরকে আবার ফিরে পাঠিয়ে দিক?

 হ্যাঁ      না      মতামত নেই    

সংবাদ আর্কাইভ