২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৭ ইং
সাপ্তাহিক আজকের বাংলা - ৪র্থ বর্ষ ১০ম সংখ্যা: বার্লিন, বৃহস্পতিবার ০৫মার্চ - ১১মার্চ ২০১৫ # Weekly Ajker Bangla – 4th year 10th issue: Berlin, Thursday 05Mar -11Mar 2015

দুর্ঘটনায় নিহত ভুবন মাঝির সংগীত পরিচালক দোহার ব্যান্ডের কালিকা

কালিকাপ্রসাদের মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ

প্রতিবেদকঃ কালের কণ্ঠ ও প্রথম আলো তারিখঃ 2017-03-08   সময়ঃ 03:48:19 পাঠক সংখ্যাঃ 169

মাত্র ৫ দিন আগেই যে মানুষটি বাংলাদেশে এসে  সংস্কৃতি অঙ্গনে তাঁর জীবনদর্শনের গল্প শোনালেন, কথা বললেন টি ভি অনুষ্ঠান মেলায় তিনি আর নেই। ভারতের পশ্চিমবঙ্গের জনপ্রিয় গানের দল দোহারের শিল্পী কালিকাপ্রসাদ সড়ক দুর্ঘটনায় মারা গেছেন। বীরভূমের সিউড়িতে অনুষ্ঠান শেষে কলকাতায় ফেরার পথে আজ মঙ্গলবার সকালে বর্ধমানের গুড়াপ এলাকার কাছে সড়ক দুর্ঘটনাটি ঘটে। প্রথম আলোকে কালিকাপ্রসাদের মৃত্যুর খবরটি নিশ্চিত করেছেন বাংলাদেশের চলচ্চিত্র নির্মাতা ফাখরুল আরেফীন।

সদ্য মুক্তি পাওয়া ‘ভুবন মাঝি’ সিনেমায় সংগীত পরিচালক হিসেবে কাজ করেছেন ভারতের দোহার ব্যান্ডের কালিকাপ্রসাদ। ৩ মার্চ বাংলাদেশের প্রেক্ষাগৃহে ছবিটি মুক্তি পায়। ছবি মুক্তির সপ্তাহ খানেকের মাথায় পাওয়া গেল গুণী এই শিল্পীর মৃত্যুসংবাদ।

‘ভুবন মাঝি’ সিনেমার মুক্তি উপলক্ষে ১ মার্চ ঢাকার বসুন্ধরা স্টার সিনেপ্লেক্সে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন কালিকা। সে সময় তিনি কথা বলেছিলেন বাংলাদেশের বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমের সঙ্গে। আজ মঙ্গলবার সকালে কালিকার মৃত্যুসংবাদে স্তম্ভিত হয়েছেন সবাই।

জানা গেছে, বীরভূমের সিউড়িতে অনুষ্ঠান শেষে কালিকা ও তাঁর দলের বাকি সদস্যরা কলকাতায় ফিরছিলেন। গাড়িতে তখন কালিকপ্রসাদসহ মোট ছয়জন ছিলেন। হঠাৎ তাঁদের বহনকারী গাড়িকে পেছন থেকে ধাক্কা দেয় অন্য একটি গাড়ি। এরপর তাঁদের গাড়ি উল্টে যায়। কালিকাপ্রসাদ ও বাকি পাঁচজনকে স্থানীয় বাসিন্দারা ও গুড়াপ থানার পুলিশ উদ্ধার করে বর্ধমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখানে নিয়ে যাওয়ার পর কালিকাপ্রসাদ মারা যান। বাকি পাঁচজনের অবস্থাও গুরুতর।

কালিকাপ্রসাদের মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। শিল্প-সাহিত্য ও সংগীতাঙ্গনে শোকের ছায়া নেমে এসেছে। রাজ্যের প্রায় সব শীর্ষস্থানীয় শিল্পী, সাহিত্যিক, সাংবাদিক, বুদ্ধিজীবীসহ বাংলাদেশ ও বিদেশে থাকা অনেকেই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক ও টুইটারে কালিকাপ্রসাদকে নিয়ে নানা স্মৃতি, ঘটনা ও শোকগাথা লিখেছেন।

বাংলাদেশের সংস্কৃতিমন্ত্রী ও বরেণ্য অভিনেতা আসাদুজ্জামান নূরও গভীর শোক প্রকাশ করেছেন। বাংলাদেশের মানুষের পক্ষ থেকে কলকাতায় বাংলাদেশ উপদূতাবাসের প্রথম সচিব (প্রেস) মোফাকখারুল ইকবাল কালিকাপ্রসাদের মরদেহে ফুল দিয়ে শেষ শ্রদ্ধা জানিয়েছেন।

কালিকাপ্রসাদের আদিবাড়ি আসামের শিলচর হলেও বাংলাদেশের প্রতি তাঁর ছিল অকৃত্রিম টান, ভালোবাসা। বাংলাদেশের যেকোনো অনুষ্ঠানে ডাক পেলেই ছুটে যেতেন। বাংলাদেশের বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেলগুলোর প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী কিংবা কোনো কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাবর্তন অনুষ্ঠানেও প্রায়ই তাঁকে গান গাইতে দেখা গেছে। দেশীয় বাদ্যযন্ত্র ব্যবহার করে লোকগান ও পল্লীগীতির ফিউশনের মাধ্যমে সাম্প্রতিক বছরগুলোতে শ্রোতা ও সমালোচকদের প্রশংসা কুড়িয়েছে ১৯৯৯ সালে গঠন করা কালিকাপ্রসাদের ব্যান্ডদল দোহার। গতকাল বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে কালিকাপ্রসাদের মরদেহ নিয়ে যাওয়া হয় কলকাতার রবীন্দ্রসদন চত্বরে। এর আগে রাজ্যের সচিবালয় নবান্নে নিয়ে যাওয়া হয় তাঁর মরদেহ। সেখানে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়সহ রাজ্য সরকারের শীর্ষস্থনীয় কর্মকর্তারা শেষ শ্রদ্ধা জানান। এরপর মরদেহ নিয়ে যাওয়া হয় দক্ষিণ কলকাতার সন্তোষপুরে তাঁর নিজ বাড়িতে। সেখানে হৃদয়বিদারক দৃশ্যের সৃষ্টি হয়।

কালিকাপ্রসাদের অকালপ্রয়াণে শোকাতুর সংগীতশিল্পী কবীর সুমন কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘এটা আমার বিশ্বাস করতে কষ্ট হচ্ছে, কালিকা নেই। ’ কালিকার মৃত্যুতে বাকরুদ্ধ সংগীত পরিচালক শান্তনু মৈত্র এবং অনুপম রায়। অনুপম রায় বলেন, ‘মাত্র দুই দিন আগেই একটা অনুষ্ঠানে জমিয়ে আড্ডা দিয়ে এলাম। এখনো মনে হচ্ছে ওর উপস্থিতি আমার সত্তাজুড়ে। ’ ঊষা উত্থুপ বলেন, ‘সব সময় ছেলেটাকে হাসিখুশি দেখেছি, স্তব্ধ হয়ে গেল সব, বিশ্বাস করতে পারছি না। ’

সংগীতশিল্পী লোপামুদ্রা মিত্র বলেন, ‘যেভাবে কালিকাপ্রসাদ নতুন করে লোকসংগীতকে আবার জাগিয়ে তুলছিলেন, সেই চেষ্টায় বড় একটা ধাক্কা লাগল। কে এর উত্তরণ করবেন, আমাদের জানা নেই। ’ এ পর্যন্ত মোট আটটি অ্যালবাম বাজারে ছেড়েছে দোহার, যার মধ্যে শেষ অ্যালবাম ‘সহস্র দোতারা’ ২০১২ সালে বাংলাদেশ থেকে প্রকাশিত হয়। কালিকাপ্রসাদ চলচ্চিত্রের জন্যও গান লিখেছেন, সুর দিয়েছেন। বাংলাদেশে চলতি সপ্তাহে মুক্তি পাওয়া ‘ভুবন মাঝি’ চলচ্চিত্রের সংগীত পরিচালকও তিনি। এ সিনেমার প্রিমিয়ারে অংশ নিতে গত ৩ মার্চ তিনি ঢাকায় এসেছিলেন।

(সূত্র: কালের কণ্ঠ ও প্রথম আলো)



আজকের কার্টুন

লাইফস্টাইল

আজকের বাংলার মিডিয়া পার্টনার

অনলাইন জরিপ

বাংলাদেশের প্রাইমারি ও মাধ্যমিক শিক্ষা পাঠক্রমে ব্যাপক পরিবর্তন করা হয়েছে জানুয়ারি ২০১৭ তে বিতরণকরা নতুন বইয়ে অদ্ভুত সব কারণ দেখিয়ে মুক্ত-চর্চার লেখকদের লেখা ১৭ টি প্রবন্ধ বাংলা বই থেকে বাদ দেওয়া হয়েছে এবং ইসলামী মৌলবাদী লেখা যোগ হয়েছে, আপনি কি এই পুস্তক আপনার ছেলে-মেয়েদের জন্য অনুমোদন করেন?

 হ্যাঁ      না      মতামত নেই    

সংবাদ আর্কাইভ