২৪ জুলাই ২০১৭ ইং
সাপ্তাহিক আজকের বাংলা - ৬ষ্ঠ বর্ষ ২৪শ সংখ্যা: বার্লিন, রবিবার ১১জুন – ১৭জুন ২০১৭ # Weekly Ajker Bangla – 6th year 24th issue: Berlin, Sunday 11 jun – 17 Jun 2017

অর্থমন্ত্রীর সমালোচনা করে তৈরি ভিডিও ভাইরাল

অনুপম ফেসবুকে আলোড়ন সৃষ্টি করেছে

প্রতিবেদকঃ ডয়েচে ভেলে তারিখঃ 2017-06-12   সময়ঃ 17:00:32 পাঠক সংখ্যাঃ 55

স্বঘোষিত নাম: চরমচিত্র৷ এই চরমচিত্রে আলোচিত বিভিন্ন বিষয় নিয়ে নিজের ক্ষোভ প্রকাশ করেন অনুপম দেবাশীষ রায়৷ বাজেট নিয়ে করা তাঁর সাম্প্রতিক এক ভিডিও ফেসবুকে আলোড়ন সৃষ্টি করেছে৷
ভিডিও'র শিরোনাম: ‘‘ভাস্কর্যের ঘোমটায় মালসাহেবের খেমটা নাচ এবং একটি দুর্নিবার অর্থনীতির হতাশ্বাসের গল্প৷’’ সম্প্রতি সুপ্রিম কোর্টের সামনে থেকে ন্যায়বিচারের ভাস্কর্য অপসারণ এবং অর্থমন্ত্রীর ঘোষিত বিতর্কিত বাজেট নিয়ে নিজের ক্ষোভের কথা ভিডিওতে প্রকাশ করেছেন অনুপম৷
হাওয়ার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতির এই শিক্ষার্থী ভিডিও’র ক্যাপশনে লিখেছেন, ‘‘এই সরকার এবং সকল সরকার ভাব ধরে, তারা রবিনহুড গোত্রের কেউ৷ তারা বলে বেড়ায় যে, ধনীরা খুব খারাপ মানুষ আর সুমহান সরকার এসে ধনীর টাকা গরীবদের দিয়ে দেবে৷ কিন্তু সত্যিকারে সরকার ধনী আর গরীব উভয়ের থেকে টাকা নিয়ে নিজে ক্ষমতায় টিকে থাকার জন্যে সবধরণের অপ্রয়োজনীয় অনুন্নয়ন ব্যয় করে বেড়ায়৷’’
ভিডিওটি ফেসবুকে ইতোমধ্যে দেখা হয়েছে বারো লাখের বেশিবার৷ এটি শেয়ার করেছেন অসংখ্য মানুষ৷ তবে দর্শকদের সবাই যে অনুপমের সঙ্গে একমত পোষণ করেছেন, তা নয়৷ বরং অকথ্য ভাষায় তাঁকে গালমন্দ করা হচ্ছে৷ কেউ কেউ তাঁর ধর্মীয় পরিচয়কে সামনে এনে তাঁকে হেয় করার চেষ্টা করছেন৷ অনুপম দেবাশীষ রায় সেসব মন্তব্য ডিলিটের বদলে বরং উত্তর দিচ্ছেন৷ নিজের কাজের ব্যাপারে বেশ আত্মবিশ্বাসী তিনি৷
অনুপম এর ভাষায় "অর্থমন্ত্রীরবলছেন যে যার ব্যাংকে এক লাখ টাকা আছে সে বড়লোক-তার থেকে ট্যাক্স মেরেই দেয়া যায়-কিন্তু সেই ট্যাক্সের টাকা দিয়ে গরীবের সন্তানের শিক্ষার দায়িত্ব নিচ্ছেন না। ১৫% পর্যন্ত ভ্যাটের বোঝা চাপিয়ে সাধারণ মানুষের ক্রয়ক্ষমতার ঊর্ধ্বে নিয়ে যাচ্ছেন পণ্যের দাম আর ব্যবসায়ীরা আন্দোলন করতে চাইলেই তিনি ভয়ংকর কুৎসিতভাবে তাদের দমন করবার কথা বলছেন"। 
 
এআই/এসিবি
 



আজকের কার্টুন

লাইফস্টাইল

আজকের বাংলার মিডিয়া পার্টনার

অনলাইন জরিপ

বাংলাদেশের প্রাইমারি ও মাধ্যমিক শিক্ষা পাঠক্রমে ব্যাপক পরিবর্তন করা হয়েছে জানুয়ারি ২০১৭ তে বিতরণকরা নতুন বইয়ে অদ্ভুত সব কারণ দেখিয়ে মুক্ত-চর্চার লেখকদের লেখা ১৭ টি প্রবন্ধ বাংলা বই থেকে বাদ দেওয়া হয়েছে এবং ইসলামী মৌলবাদী লেখা যোগ হয়েছে, আপনি কি এই পুস্তক আপনার ছেলে-মেয়েদের জন্য অনুমোদন করেন?

 হ্যাঁ      না      মতামত নেই    

সংবাদ আর্কাইভ