২৪ জুলাই ২০১৭ ইং
সাপ্তাহিক আজকের বাংলা - ৬ষ্ঠ বর্ষ ২৮শ সংখ্যা: বার্লিন, রবিবার ০৯জুল – ১৫জুল ২০১৭ # Weekly Ajker Bangla – 6th year 28th issue: Berlin,Sunday 09Jul– 15Jul 2017

যত বেশি কফি পান করবেন তত বেশি আয়ু

অয়েল নয়, ক্রিম পেইন্ট

প্রতিবেদকঃ ডয়েচে ভেলে তারিখঃ 2017-07-15   সময়ঃ 16:48:56 পাঠক সংখ্যাঃ 56

আপনি কি কফিতে আসক্ত? তাহলে সুখবর! দীর্ঘমেয়াদি গবেষণা প্রমাণ করেছে যে, দিনে অন্তত এক কাপ কফি শরীরের জন্য খুব উপকারী৷ কয়েক কাপ হলে আরো ভালো৷
কফি শরীরের জন্য ক্ষতিকর, এমন ধারণা চালু আছে অনেকেরই মাঝে৷ কিন্তু সাত লাখ মানুষের ওপর চালানো দু'টো গবেষণা তা ভুল প্রমাণ করেছে৷ দীর্ঘমেয়াদি এই গবেষণাগুলোতে দেখা যায়, কফি পান অনেক রোগে মৃত্যুর ঝুঁকি কমায়, বিশেষ করে সঞ্চরণশীল ও গ্যাস্ট্রো-ইন্টেসটাইনাল রোগগুলোর ক্ষেত্রে৷
‘ইন্টারন্যাশনাল এজেন্সি ফর রিসার্চ অন ক্যানসার' এবং ‘ইম্পেরিয়াল কলেজ লন্ডন'-এর গবেষণাটিতে কফি পানের অভ্যাস ও স্বাস্থ্য সুরক্ষার বিষয়টি তুলনা করা হয়৷ যেমন ইটালিতে কেউ হয়ত এসপ্রেসো পছন্দ করেন, আবার লন্ডনে কেউ কাপুচিনোর ওপর চড়ে বসেছেন৷ গবেষকরা ইউরোপের দশটি দেশের ৫ লাখেরও বেশি মানুষের ওপর এই গবেষণাটি করেন৷
দ্বিতীয় গবেষণাটিতে বিভিন্ন জাতি, তাদের জীবন পদ্ধতি ও রোগের ঝুঁকির সঙ্গে কফির সম্পর্ক নির্ণয় করার চেষ্টা করা হয়৷ সাদা অ্যামেরিকান, আফ্রিকান-অ্যামেরিকান,
জাপনিজ-অ্যামেরিকান এবং ল্যাটিনোদের মধ্যে করা এই গবেষণায় দেখা যায়, এদের মধ্যে যারা দিনে অন্তত এক কাপ কফি খান, তাদের স্বাস্থ্য ঝুঁকি যারা কফি খান না তাদের চেয়ে ১২ ভাগ কম৷ ইউনিভার্সিটি সাউথ ক্যারোলাইনা এই গবেষণাটি করেছে৷ গেল সোমবার গবেষণা দু'টি ‘অ্যানালস অফ ইন্টারনাল মেডিসিন'-এ প্রকাশিত হয়েছে৷ 
দু'টো গবেষণাতেই দেখা যায়, দিনে তিন কাপ বা তার চেয়ে বেশি কফি খাওয়া স্বাস্থ্যের পক্ষে সবচেয়ে ভালো৷ সেক্ষেত্রে কফিটি ক্যাফেইনসহ না মুক্ত তাতে কিছু আসে যায় না৷ কফিতে প্রায় ১,০০০ রাসায়নিক পদার্থ আছে৷ ক্যাফেইন ছাড়াও এতে আছে পলিফেনল এবং অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট উপাদান আছে এমন আরো যৌগ, যেগুলো শরীরের জন্য উপকারী৷ ইম্পেরিয়াল কলেজ লন্ডনের গবেষকদের মতে, কফিপানকারীদের লিভার ও রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা তুলনামূলক বেশি৷ তবে কফির ঠিক কোন উপাদানটি স্বাস্থ্যসুরক্ষায় এমন অবদান রাখছে, তা এখনো বের করতে পারেননি গবেষকরা৷
১৬ বছর ধরে চলা এই গবেষণায় যদিও দেখা গেছে কফি পানে স্বাস্থ্য সুবিধা পেয়েছেন অনেকেই৷ গবেষকরা অবশ্য এমন গ্যারান্টি দিচ্ছেন না যে, কফি খেলেই কারো স্বাস্থ্যের ব্যাপক উন্নতি ঘটবে৷ তবে কে জানে, গবেষণার ফল দেখে কফি পাগলরা হয়ত আরেকবার তাদের খালি মগ ভর্তি করে নিয়েছেন৷

এমন কফি কি পান করা যায়!

কফিই যখন চিত্রকর্ম
 
কফির কাপে সাধারণ সব ডিজাইনে সবাই অভ্যস্ত৷ সাউথ কোরিয়ার বারিস্তা লি ক্যাং বিন চাইছিলেন বাড়তি কিছু করতে৷ কী করা যায় ভাবতে ভাবতেই একসময় মাথায় আসলো এক বুদ্ধি৷ ম্যাড়মেড়ে ডিজাইন বাদ দিয়ে তাই হাতে নিলেন রং-তুলি৷ সিউলে খুলে বসলেন ক্যাফে সি থ্রু৷

অয়েল নয়, ক্রিম পেইন্ট
 
দেখে হয়ত মনে হতে পারে, এমন ঘটনা ঘটাতে না জানি কী প্রয়োজন৷ কিন্তু ব্যাপারটা একেবারেই তার উলটো৷ রং হিসেবে লি ক্যাং ব্যবহার করেন ফুড ডাই৷ কফিতে সে রং ছড়িয়ে দিতে, ছোট ছোট তুলি৷ ফলে ক্যাফেটিতে গ্রাহকদের আস্ত অয়েল পেইন্ট খাওয়ানো হচ্ছে, এমনটি ভাবার কোনো কারণ নেই৷
 
কফিতে ফান গখ
 
লি ক্যাংয়ের সৃষ্টির মধ্যে সবচেয়ে উল্লেখযোগ্য ভিনসেন্ট ফান গখের (বানানভেদে ভ্যান গগ) ‘দ্য স্টারি নাইট’৷ ফ্রান্সের এক মানসিক স্বাস্থ্যকেন্দ্রে থাকার সময় বিখ্যাত ছবিটি আঁকেন এই ডাচ শিল্পী৷ পশ্চিমা সংস্কৃতির সবচেয়ে উল্লেখযোগ্য ছবি মনে করা হয় স্টারি নাইটকে৷
 
কফির আর্তনাদ!
 
কেমন হবে যদি কফির কাপে ভাসতে থাকে আর্তনাদ করা এক মানুষের অবয়ব? এমনটাই করে দেখিয়েছেন লি ক্যাং৷ নরওয়েজিয়ান ইম্প্রেশনিস্ট এডোয়ার্ড মুঙ্কের বিখ্যাত চিত্রকর্ম ‘দ্য স্ক্রিম’, কফিতে হুবহু ফুটিয়ে তুলতে পারেন ক্যাং৷
 

ব্রিগিটে অস্টেরাথ/জেডএ



আজকের কার্টুন

লাইফস্টাইল

আজকের বাংলার মিডিয়া পার্টনার

অনলাইন জরিপ

বাংলাদেশের প্রাইমারি ও মাধ্যমিক শিক্ষা পাঠক্রমে ব্যাপক পরিবর্তন করা হয়েছে জানুয়ারি ২০১৭ তে বিতরণকরা নতুন বইয়ে অদ্ভুত সব কারণ দেখিয়ে মুক্ত-চর্চার লেখকদের লেখা ১৭ টি প্রবন্ধ বাংলা বই থেকে বাদ দেওয়া হয়েছে এবং ইসলামী মৌলবাদী লেখা যোগ হয়েছে, আপনি কি এই পুস্তক আপনার ছেলে-মেয়েদের জন্য অনুমোদন করেন?

 হ্যাঁ      না      মতামত নেই    

সংবাদ আর্কাইভ