১৮ নভেম্বর ২০১৭ ইং
সাপ্তাহিক আজকের বাংলা - ৬ষ্ঠ বর্ষ ৩৩শ সংখ্যা: বার্লিন, রবিবার ১৩ আস্ট – ১৯ আস্ট ২০১৭ # Weekly Ajker Bangla – 6th year 33rd issue: Berlin,Sunday 13Aug – 19Aug 2017

জার্মানিতে তুরস্কের ‘মোস্ট ওয়ান্টেড’ আসামি

বন্দি করে ফেরত পাঠাতে আনুষ্ঠানিক অনুরোধ জানিয়েছে তুরস্ক

প্রতিবেদকঃ ডয়েচে ভেলে তারিখঃ 2017-08-17   সময়ঃ 04:47:17 পাঠক সংখ্যাঃ 89

জার্মানিতে অবস্থানরত এক তুর্কি নাগরিককে বন্দি করে ফেরত পাঠাতে আনুষ্ঠানিক অনুরোধ জানিয়েছে তুরস্ক৷ পলাতক এই ধর্মতত্ত্বের শিক্ষকের বিরুদ্ধে গত বছর তুরস্কে ব্যর্থ সামরিক অভ্যুত্থানে জড়িত থাকার অভিযোগ রয়েছে৷
তুরস্কের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মেভল্যুট চাভুশোলু জানিয়েছেন এরই মধ্যে জার্মানিকে এ বিষয়ে আনুষ্ঠানিক চিঠি দেয়া হয়েছে৷ তুর্কি টেলিভিশন চ্যানেল টিআরটি হাবেরকে চাভুশোলু জানান, ধর্মতত্ত্বের শিক্ষক আদিল ওকসুজকে জার্মানিতে দেখা গেছে, এমন তথ্য পাওয়ার পরই তারা বার্লিনের কাছে এই অনুরোধ জানিয়েছেন৷ তিনি বলেন, ‘‘যদি এই লোক সেখানে থাকে, তবে তাকে চিহ্নিত করে, গ্রেপ্তার করে তুরস্কের কাছে ফেরত পাঠানো হোক৷''
ওকসুজের বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রপ্রবাসী নেতা ফেতুল্লাহ গুলেনের অনুসারী হিসেবে কাজ করার অভিযোগ তুরস্ক সরকারের৷ ফেতুল্লাহ গুলেনকে ব্যর্থ সামরিক অভ্যুত্থানের জন্য দায়ী করে আঙ্কারা৷
জার্মানির ফ্রাংকফুর্ট এবং উলম শহরে ওকসুজকে দেখা গেছে বলে খবর প্রকাশ হয়েছে তুরস্কের বিভিন্ন গণমাধ্যমে৷ দেশটির দক্ষিণ-পশ্চিমের প্রদেশ বাডেন-ভ্যুরটেমবার্গে তাকে অস্থায়ী বসবাসের অনুমতি দেয়ারও তথ্য পাওয়ার দাবি করেছে এ সব গণমাধ্যম৷
তুরস্কের মোস্ট ওয়ান্টেড
তুরস্ক সরকার বলছে, গত বছরের জুলাইয়ে বিমানবাহিনী যে সদস্যরা বোমা হামলা চালিয়েছিলেন, ওকসুজ তাদের ‘বেসরকারি ইমাম' ছিলেন৷
ওকসুজকে অভ্যুত্থান ব্যর্থ হওয়ার পর আকিনচি বিমান ঘাঁটি থেকে গ্রেপ্তার করা হয়৷ কিন্তু দুই দিন পর তাকে ‘গুলেনপন্থি' এক বিচারক মুক্তির আদেশ দেন৷ তখন থেকেই পলাতক ওকসুজ আছেন তুরস্কের মোস্ট ওয়ান্টেড তালিকায়৷
ব্যর্থ অভ্যুত্থানের পর প্রকাশ করা এক ভিডিও ফুটেজে ওকসুজ ও তার সহকারি ব্যবসায়ি কেমাল বাটমাজকে ইস্তানবুলের মূল বিমানবন্দরে ঘোরাঘুরি করতে দেখা গেছে৷ তুরস্ক কর্তৃপক্ষের দাবি, তারা যুক্তরাষ্ট্রে ফেতুল্লাহ গুলেনের সাথে ‘বৈঠক' করে ফিরছিলেন৷ তবে গুলেন বরাবরই এই অভ্যুত্থানে জড়িত থাকার অভিযোগ অস্বীকার করে আসছেন৷ ১৯৯৯ সাল থেকে পেনসিলভ্যানিয়ায় স্বেচ্ছানির্বাসনে আছেন গুলেন৷
বাটমাজকে অভ্যুত্থান ব্যর্থ হওয়ার পরপরই গ্রেপ্তার করা হয়৷ এখন তার বিরুদ্ধে মামলা শুরুর অপেক্ষায় আছে৷ এখন পর্যন্ত প্রায় ৫০ হাজার মানুষকে গ্রেপ্তার করেছে তুরস্ক, যার মধ্যে সাংবাদিক এবং বিরোধী দলের নেতারাও আছেন৷
ব্যাপক হারে এই ধরপাকড়ের কারণে তুরস্ক-জার্মানি সম্পর্ক কিছুটা তিক্ত হয়েছে৷ অভিযোগ উঠেছে প্রেসিডেন্ট রিচেপ তাইয়েপ এর্দোয়ান বিরোধী মত দমন করতে অভ্যুত্থানের ঘটনাকে কাজে লাগাচ্ছেন৷
এডিকে/ডিজি (এপি, রয়টার্স)
 



আজকের কার্টুন

লাইফস্টাইল

আজকের বাংলার মিডিয়া পার্টনার

অনলাইন জরিপ

প্রতিবেশী রাষ্ট্র মিয়ানমার রোহিঙ্গা দেরকে অত্যাচার করে ফলে ২০১৭ তে অগাস্ট ২৫ থেকে সেপ্টেম্বর পর্যন্ত ১ মাসে ৫ লক্ষ্য রোহিঙ্গা জাতিগোষ্ঠী বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছে, আপনি কি মনে করেন বাংলাদেশ শরণার্থী দেরকে আবার ফিরে পাঠিয়ে দিক?

 হ্যাঁ      না      মতামত নেই    

সংবাদ আর্কাইভ