১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮ ইং
সাপ্তাহিক আজকের বাংলা - ৭ম বর্ষ ২৭ সংখ্যা: বার্লিন, সোমবার ০২জুল–০৮জুল ২০১৮ # Weekly Ajker Bangla – 7th year 27 issue: Berlin, Monday 02Jul-08 Jul 2018

পুলিশের গুলিতে তরুণ নিহত, ফ্রান্সে বিক্ষোভের আগুন

প্রতিবেদকঃ DW তারিখঃ 2018-07-04   সময়ঃ 02:51:28 পাঠক সংখ্যাঃ 58

গাড়ি থামানোর চেষ্টা করেছিল পুলিশ৷ কিন্তু চালক গাড়ি না থামানোয় গুলি করলে প্রাণ যায় তাঁর৷ ফ্রান্সের নঁতে এবং তার আশপাশের এলাকায় তারপর থেকে জ্বলছে প্রতিবাদ, বিক্ষোভের আগুন৷

নিহত ২২ বছর বয়সি ওই তরুণের পরিচয় জানা যায়নি৷ নঁতে শহর পুলিশের প্রধান কর্মকর্তা জঁ-ক্রিস্টফ বার্ট্রান্ড বলেছেন, ওই তরুণকে প্রথমে শুধু গাড়ি থামাতে বলেছিল পুলিশ৷ তাঁকে থানায় নিয়ে যাওয়ার নির্দেশ পাওয়ার কারণেই গাড়ি থামানোর চেষ্টা৷ কিন্তু তরুণটি গাড়ি না থামিয়ে হঠাৎ দিক পরিবর্তন করে উল্টো দিকে চালানোর চেষ্টা করে৷ তা করতে গিয়েই এক পুলিশ কর্মকর্তার হাঁটুতে গাড়ির ধাক্কা৷ সঙ্গে সঙ্গেই গুলি করে বসে আরেক পুলিশ৷

গুলিবিদ্ধ তরুণের মৃত্যুরখবর ছড়িয়ে পড়তেই নঁতের রাস্তায় শুরু হয় বিক্ষোভ, প্রতিবাদ৷ পার্শ্ববর্তী ব্রাইলেও ছড়িয়ে পড়ে বিক্ষোভ৷ বিক্ষোভকারীরা বেশ কয়েকটি গাড়ি এবং একটি শপিং মলে আগুন ধরিয়ে দেয়৷ পুলিশের সঙ্গে বেঁধে যায় সংঘর্ষ৷ দেরভালিয়ার্স এবং মালাকফ এলাকাতেও বিক্ষোভকারীদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষ হয়েছে৷ 

 

পরিস্থিতি আরো খারাপ হওয়ার আশঙ্কা

পরিস্থিতি আরো ভয়াবহ হতে পারে বলে আশঙ্কা করছে পুলিশ৷ নঁতে'র স্থানীয় দৈনিক প্রেসে-ওশানকে এক পুলিশ কর্মকর্তা বলেছেন, ‘‘আগামী কয়েকদিনে আরো খারাপ পরিস্থিতির আশঙ্কা করছি আমরা৷'' 

তদন্ত শুরু

এদিকে ইতিমধ্যে ঘটনার সুষ্ঠু তদন্তের দাবি উঠেছে৷ ফ্রান্সের সংসদ সদস্য ভালেরি ওপেল্ট জানিয়েছেন, ইতিমধ্যে তদন্ত শুরু হয়েছে৷ সবাইকে শান্ত থাকার আহ্বান জানিয়ে তিনি টুইটারে লিখেছেন, ‘‘গতরাতে নঁতে ছিল সহিংসতার শহর৷ সবাইকে অনুরোধ করবো, আপনারা শান্ত থাকুন৷ কী পরিস্থিতিতে দুঃখজনক এই ঘটনা ঘটলো তা জানার জন্য তদন্ত শুরু করা হয়েছে৷''

এসিবি/এপিবি (এএফপি, ডিপিএ)

 



আজকের কার্টুন

লাইফস্টাইল

আজকের বাংলার মিডিয়া পার্টনার

অনলাইন জরিপ

প্রতিবেশী রাষ্ট্র মিয়ানমার রোহিঙ্গা দেরকে অত্যাচার করে ফলে ২০১৭ তে অগাস্ট ২৫ থেকে সেপ্টেম্বর পর্যন্ত ১ মাসে ৫ লক্ষ্য রোহিঙ্গা জাতিগোষ্ঠী বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছে, আপনি কি মনে করেন বাংলাদেশ শরণার্থী দেরকে আবার ফিরে পাঠিয়ে দিক?

 হ্যাঁ      না      মতামত নেই    

সংবাদ আর্কাইভ