১৮ অক্টোবর ২০১৮ ইং
সাপ্তাহিক আজকের বাংলা - ৭ম বর্ষ ২৮ সংখ্যা: বার্লিন, সোমবার ০৯জুল–১৫জুল ২০১৮ # Weekly Ajker Bangla – 7th year 28 issue: Berlin, Monday 09Jul-15 Jul 2018

নেকড়ের হত্যাকারীকে ধরতে পুরষ্কার ঘোষণা

নেকড়ে সম্পর্কে আমাদের যা জানা উচিত

প্রতিবেদকঃ DW তারিখঃ 2018-07-11   সময়ঃ 17:24:59 পাঠক সংখ্যাঃ 99

জার্মানিতে এক নেকড়েকে গুলি করে হত্যা করা হয়েছে, তারপর কংক্রিটের সাথে বেঁধে ফেলে দেয়া হয়েছে লেকের গভীর পানিতে৷ এ নিয়ে চলছে তোলপাড়৷ প্রাণি অধিকারকর্মীরা দাবি তুলেছেন, খুনিকে গ্রেপ্তারের৷

জার্মানির স্যাক্সনি রাজ্যের বাউৎসেন শহরের লেকে ১০ জুন ভেসে ওঠে ১ বছর বয়সি এক নারী নেকড়ের মরদেহ৷ বার্লিনের ওয়াইল্ড লাইফ রিসার্চ ইন্সটিটিউট নেকড়ের মরদেহ পরীক্ষা করেছে৷ তারা বলছে, খুব কাছ থেকে বুকে গুলি করে হত্যা করা হয়েছে নেকড়েকে৷

জার্মান সংগঠন প্রটেকশন অব উলভস-এর প্রধান ব্রিগিটে যমার বলছেন, ‘‘এর মাধ্যমে আরো একবার প্রমাণিত হলো, নেকড়ে নয়, মানুষই আসলে বেশি পাশবিক৷''

 

যমারের সংগঠন, বাউৎসেন শহর কর্তৃপক্ষ এবং ‘উলভস: ইয়েস প্লিজ' নামের ফেসবুক গ্রুপ খুনিকে ধরতে পুরষ্কার ঘোষণা করেছে৷ পুরষ্কারের পরিমাণ ৭ হাজার ইউরো৷

যমার মনে করেন, ‘‘কেউ যদি এই হত্যাকাণ্ড সম্পর্কে কিছু জেনে থাকে, ৭ হাজার ইউরো তাঁর মুখ খোলার জন্য যথেষ্ট৷''

ইউরোপীয় ইউনিয়ন এবং জার্মান আইনে নেকড়েরা সংরক্ষিত৷ নেকড়ে হত্যাকে এখানে অপরাধ হিসেবে গণ্য করা হয়৷ স্যাক্সনি স্টেট ক্রিমিনাল পুলিশ এই হত্যার তদন্ত করছে৷

জার্মান আইন অনুযায়ী, বন্য নেকড়ে হত্যার শাস্তি কয়েক হাজার ইউরো জরিমানা এবং ক্ষেত্রবিশেষে ৫ বছর পর্যন্ত জেলও হতে পারে৷

‘উলভস ইন স্যাক্সনি' নামের বন্যপ্রাণি রক্ষা সংগঠনের তথ্য বলছে, ২০০৯ সাল থেকে ৮টি নেকড়ে হত্যার ঘটনা ঘটেছে৷ নেকড়ের সংখ্যা বৃদ্ধি এবং কিভাবে তাদের সাথে খাপ খাইয়ে নেয়া যায়, এ নিয়ে সাধারণ মানুষ তো বটেই, রাজনীতিবিদরাও দ্বিধাবিভক্ত৷

ক্রিস্টিনা বুরাক/এডিকে

নেকড়ে সম্পর্কে আমাদের যা জানা উচিত

অনন্ত ভালোবাসা?

নেকড়েরা তাদের সঙ্গীর প্রতি বিশ্বস্ত থাকে বলে কথিত আছে৷ তবে এটাও স্বাভাবিক হিসেবে বিবেচনা করা হয় যে ‘আলফা মেল’ নেকড়েদের একাধিক নারীর সঙ্গে সম্পর্ক থাকতে পারে৷

চাঁদের দিকে তাকিয়ে গর্জন?

নেকড়েরা চাঁদের দিকে তাকিয়ে গর্জন করে বলে শ্রুতি রয়েছে৷ তবে বিজ্ঞানীরা বলছেন, এটা ঠিক নয়৷ বরং নেকড়েরা মুখ উঁচু করে এভাবে ডাক দেয়, কেননা, এতে শব্দ অনেক দূর অবধি পৌঁছায়৷ নেকড়েরা বিভিন্ন কারণে এভাবে ডাক দেয়৷ এসব কারণের মধ্যে রয়েছে, নিজের দলকে একত্রিত করা, একজন সঙ্গীর মনোযোগ আকর্ষণ, নিজের এলাকা ঘোষণা, শত্রুকে ঘাবড়ে দেয়া, সতর্ক সংকেত দেয়া বা নিজের অবস্থানের কথা জানানো৷

 

 

 



আজকের কার্টুন

লাইফস্টাইল

আজকের বাংলার মিডিয়া পার্টনার

অনলাইন জরিপ

প্রতিবেশী রাষ্ট্র মিয়ানমার রোহিঙ্গা দেরকে অত্যাচার করে ফলে ২০১৭ তে অগাস্ট ২৫ থেকে সেপ্টেম্বর পর্যন্ত ১ মাসে ৫ লক্ষ্য রোহিঙ্গা জাতিগোষ্ঠী বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছে, আপনি কি মনে করেন বাংলাদেশ শরণার্থী দেরকে আবার ফিরে পাঠিয়ে দিক?

 হ্যাঁ      না      মতামত নেই    

সংবাদ আর্কাইভ