১৮ অক্টোবর ২০১৮ ইং
সাপ্তাহিক আজকের বাংলা - ৭ম বর্ষ ২৯ সংখ্যা: বার্লিন, সোমবার ১৬জুল–২২জুল ২০১৮ # Weekly Ajker Bangla – 7th year 29 issue: Berlin, Monday 16Jul-22Jul 2018

পুটিন সম্পর্কে নরম মনোভাব দেখিয়ে বেকায়দায় ট্রাম্প

তীব্র সমালোচনার মুখে পড়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প

প্রতিবেদকঃ DW তারিখঃ 2018-07-17   সময়ঃ 16:41:26 পাঠক সংখ্যাঃ 104

রাশিয়ার প্রতি নরম মনোভাব ও অ্যামেরিকার ‘নির্বুদ্ধিতা' নিয়ে সরব হয়ে তীব্র সমালোচনার মুখে পড়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প৷ রুশ প্রেসিডেন্টের সঙ্গে শীর্ষ বৈঠকে তিনি দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কের উন্নতির উপর জোর দিলেন৷

এমন ঘটনা কয়েক বছর আগেও কল্পনা করা সম্ভব হতো না৷ শীর্ষ বৈঠকের পর সংবাদ সম্মেলনে রুশ ও মার্কিন প্রেসিডেন্ট একযোগে মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থার বিরুদ্ধে তোপ দাগছেন, তাদের কার্যকলাপের বিষয়ে সংশয় প্রকাশ করছেন৷ সোমবার ফিনল্যান্ডের রাজধানী হেলসিংকিতে ঠিক এমনই প্রায় অবিশ্বাস্য ঘটনা প্রত্যক্ষ করলো গোটা বিশ্ব৷ ২০১৬ সালে মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে রাশিয়ার হস্তক্ষেপ ও একজন প্রেসিডেন্ট পদপ্রার্থীর জয় তরান্বিত করতে রাশিয়ার সক্রিয় ভূমিকার অভিযোগ আবার অস্বীকার করলেন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট পুটিন৷ ট্রাম্প আবার জানালেন, তিনি নিজে কখনো এমন ষড়যন্ত্রে শামিল হননি এবং এ বিষয়ে রুশ প্রেসিডেন্টের বক্তব্য তিনি বিশ্বাস করছেন৷

ঘরে-বাইরে প্রবল চাপ সত্ত্বেও ট্রাম্প প্রকাশ্যে রাশিয়ার বিরুদ্ধে একটি শব্দও উচ্চারণ করলেন না৷ তার বদলে তিনি রাশিয়ার হস্তক্ষেপের বিষয়ে তদন্তের প্রশ্নে নিজের দেশের ‘বোকামি' নিয়ে সোচ্চার হয়ে উঠলেন৷ শীর্ষ বৈঠকের আগেই ট্রাম্প এক টুইট বার্তায় রাশিয়ার সঙ্গে সম্পর্কের চরম অবনতির জন্য নিজের দেশকেই দায়ী করেন৷ রুশ পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় তাঁর এই টুইট বার্তার প্রতি সমর্থন প্রকাশ করেছে৷

এমন অভূতপূর্ব ঘটনার পর মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে প্রেসিডেন্টের বিরুদ্ধে তীব্র সমালোচনার ঝড় উঠেছে৷ এমনকি রিপাবলিকান দল ও মার্কিন প্রশাসনের একটা অংশও সেই সমালোচনায় সুর মিলিয়েছে৷ ন্যাশানাল ইন্টেলিজেন্স প্রধান ড্যান কোটস স্পষ্ট বলেছেন, তিনি প্রেসিডেন্টের মূল্যায়নের সঙ্গে একমত নন৷ তাঁর মতে, মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থাগুলির মূল্যায়ন অনুযায়ী ২০১৬ সালের নির্বাচনে হস্তক্ষেপ এবং মার্কিন গণতন্ত্রকে এখনো খর্ব করার প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে রাশিয়া৷

রিপাবলিকান দলের সংসদ সদস্য লিন্ডসে গ্র্যাহাম এক টুইট বার্তায় লেখেন, রাশিয়া মার্কিন প্রেসিডেন্টের জবাবকে দুর্বলতা হিসেবে গণ্য করবে এবং এর ফলে নতুন করে আরও সমস্যা সৃষ্টি হবে৷

পরিস্থিতি সামাল দিতে ট্রাম্প এক টুইট বার্তায় মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থাগুলির প্রতি তাঁর ‘অগাধ' আস্থা প্রকাশ করেন৷ একইসঙ্গে অতীত ভুলে উজ্জ্বল ভবিষ্যতের স্বার্থে বিশ্বের দুই প্রধান পরমাণু অস্ত্রধর দেশের মধ্যে সুসম্পর্ক গড়ে তোলার প্রয়োজনীয়তার উল্লেখ করেন তিনি৷
অন্যদিকে রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুটিন বুঝিয়ে দিলেন যে, তিনি শীর্ষ বৈঠক ও সংবাদ সম্মেলন বেশ উপভোগ করেছেন৷ তিনি মার্কিন প্রেসিডেন্টের প্রশংসাও করেছেন৷ এমনকি তিনি স্বীকার করেন যে, ২০১৬ সালের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে তিনি ট্রাম্পকেই জয়ী দেখতে চেয়েছিলেন৷ তবে হস্তক্ষেপের অভিযোগ ভিত্তিহীন হিসেবে উড়িয়ে দিয়েছেন ট্রাম্প৷ প্রকৃত আইনি প্রক্রিয়ার আওতায় তিনি মার্কিন তদন্তকারীদের রাশিয়ায় এসে অভিযুক্ত ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে তদন্তের প্রস্তাবও দিয়েছেন৷ তবে পারস্পরিক সহযোগিতার ভিত্তিতে  রুশ কর্তৃপক্ষকেও রাশিয়ায় মার্কিন গুপ্তচরদের বিরুদ্ধে তদন্তের সুযোগ দিতে হবে বলে মন্তব্য করেন তিনি৷
সাম্প্রতিক ঘটনাপ্রবাহের আলোকে জার্মান পররাষ্ট্রমন্ত্রী হাইকো মাস বলেছেন, ইউরোপ আর মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের উপর নির্ভর করতে পারছে না৷ অ্যামেরিকার সঙ্গে সহযোগিতা বজায় রাখতে কিছু রদবদল করা উচিত বলে মনে করেন তিনি৷ তবে বিশ্বের অনেক প্রান্তে উত্তেজনার প্রেক্ষাপটে রাশিয়া ও অ্যামেরিকার মধ্যে সংলাপ বজায় রাখার পক্ষে তিনি সওয়াল করেন৷

 

 



আজকের কার্টুন

লাইফস্টাইল

আজকের বাংলার মিডিয়া পার্টনার

অনলাইন জরিপ

প্রতিবেশী রাষ্ট্র মিয়ানমার রোহিঙ্গা দেরকে অত্যাচার করে ফলে ২০১৭ তে অগাস্ট ২৫ থেকে সেপ্টেম্বর পর্যন্ত ১ মাসে ৫ লক্ষ্য রোহিঙ্গা জাতিগোষ্ঠী বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছে, আপনি কি মনে করেন বাংলাদেশ শরণার্থী দেরকে আবার ফিরে পাঠিয়ে দিক?

 হ্যাঁ      না      মতামত নেই    

সংবাদ আর্কাইভ