১৬ অক্টোবর ২০১৮ ইং
সাপ্তাহিক আজকের বাংলা - ৭ম বর্ষ ৪০সংখ্যা: বার্লিন, সোমবার ০১অক্ট–০৭অক্ট ২০১৮ # Weekly Ajker Bangla – 7th year 40 issue: Berlin, Monday 01Oct-07Oct 2018

জার্মানিতে উৎসবে যৌন হয়রানি এবং ধর্ষণের ঘটনা

অক্টোবরফেস্ট: অফুরান আনন্দের মেলা

প্রতিবেদকঃ DW তারিখঃ 2018-10-04   সময়ঃ 02:36:08 পাঠক সংখ্যাঃ 13

পুরো বিশ্বে বিয়ার পানের উৎসব হিসেবে মিউনিখের অক্টোবরফেস্ট বিখ্যাত৷ কিন্তু এই উৎসবে নারীরা প্রায়ই যৌন হয়রানির শিকার হয়ে থাকেন৷ এ বছর এসব ঘটনা আরও বেড়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ৷

সেপ্টেম্বরের ২২ তারিখ থেকে শুরু হয় এই উৎসব৷  যেসব তাঁবুতে বিয়ার বিক্রি হয়, রাতের বেলায় সেগুলোতে গিয়ে বিয়ার নিতে লাইন ধরে দাঁড়ান ঐতিহ্যবাহী পোশাক পরিহিত তরুণ-তরুণীরা৷ এমনই এক তাঁবুতে মারামারি করতে গিয়ে এ বছর প্রাণ হারিয়েছেন এক ব্যক্তি৷ তাই তরুণ-তরুণীদের প্রশ্ন করা হয়েছিল, তারা কি অক্টোবরফেস্টে নিরাপদ বোধ করেন? এর উত্তরে তরুণরা উৎসবে নিয়োজিত বিপুল সংখ্যক পুলিশের উপস্থিতির প্রশংসা করেছেন৷ কিন্তু তরুণীদের ক্ষেত্রে ভিন্ন উত্তর পাওয়া গেছে৷ নিরাপত্তার প্রশ্নে তাঁদের অনেককেই নিশ্চুপ থাকতে দেখা গেছে৷

এ বছরের উৎসব শুরু হওয়ার পর এ পর্যন্ত পুলিশ ২১টি যৌন হয়রানির মামলা নথিবদ্ধ করেছে৷ এর মধ্যে যৌন নীপিড়ন এমনকি ধর্ষণের ঘটনাও আছে৷ ঘটেছে দলবদ্ধ হয়ে নারীদের স্পর্শকাতর অঙ্গ স্পর্শ করার ঘটনাও৷

২২ শে সেপ্টেম্বর শুরু হওয়া উৎসবের প্রথম দিনেই ২১ বছর বয়সি এক নারীকে ধর্ষণের অপরাধে ২৫ বছর বয়সি এক ব্যক্তিকে আটক করে পুলিশ৷ ওই নারী ফিনল্যান্ড থেকে উৎসবে যোগ দিতে এসেছিলেন৷ এর মাত্র কয়েকদিন পরেই ৪৩ বছর বয়সি এক নারীর স্কার্টের তলায় হাত ঢুকিয়ে দিলে যৌন হয়রানিকারীর হাত ধরে ফেলেন ওই নারী৷ কিন্তু একটি কাচের বোতল ওই নারীর মুখে ভেঙে পালিয়ে যায় ওই ব্যক্তি৷ পুলিশ জানিয়েছে, গত কয়েক বছর ধরে অক্টোবর ফেস্টে নারীদের উপর যৌন হয়রানির ঘটনা আশঙ্কাজনকভাবে বেড়েছে৷

২০১৭ সালে উৎসব চলাকালীন মোট ৬৭টি অভিযোগ জানানো হয়েছে পুলিশকে৷ ২০১৬ সালে এমন অভিযোগ ছিল ৩৪টি৷

উৎসবে অংশ নেয়া অনেক নারী ডয়চে ভেলেকে জানিয়েছেন, তাঁরা নিজেরা এ ধরনের হয়রানির শিকার হননি৷ অনেকে আবার ধরে নিয়েছেন এসব তাঁবুর আশেপাশে থাকলে এমন ঘটনা ঘটাই স্বাভাবিক৷ অক্টোবরফেস্টে নারীদের নিরাপত্তা দেয়া এবং অভিযোগ গ্রহণের জন্য বিশেষ ‘স্পট’ করা হয়েছে, কিন্তু অনেক বছর ধরে উৎসবে যোগ দিচ্ছেন এমন নারীরাও জানেন না সেটার অবস্থান৷

রেবেকা স্টাওডেনমায়ের/এপিবি

অক্টোবরফেস্ট: কী করবেন, কী করবেন না

নাচুন, বেশি করে নাচুন

তাঁবুতে বিয়ার পান করা তো বাধ্যতামূলক৷ একবার ভেতরে ঢুকে গেলে গানবাজনা আর আনন্দ এড়িয়ে যাওয়ার কোনো উপায় থাকে না৷ দারুণ আনন্দে আপনি বেঞ্চে উঠেও নাচতে পারবেন, সবাই হাততালি দিয়ে উসাহও জোগাবে৷ কিন্তু অতি উৎসাহে টেবিলে উঠে পড়়বেন না যেন৷ এ অপরাধে বেরও করে দেয়া হতে পারে তাঁবু থেকে৷

 

পোশাকে বিশেষ তথ্য

অক্টোবরফেস্টে অনেকেই যান বিশেষ পোশাক পরে৷ তবে মেয়েদের পোশাকে থাকে বিশেষ কিছু তথ্য৷ কোমরে বাঁধা ফিতার গিঁট যদি ডানে থাকে, বুঝতে হবে তাঁর একজন পার্টনার আছে, বাঁদিকে থাকলে তিনি সিঙ্গেল, মাঝখানে থাকলে বোঝায় ভার্জিন৷ কেবল বিধবা এবং ওয়েটাররাই গিঁট দেন পেছনে৷

বিবস্ত্র হলে সমস্যা নেই, ছবি তুলবেন না

পার্টি চলাকালীন কোনো নারীর ছবি তুলতেই পারেন৷ কিন্তু মাঝেমধ্যে অনেকেই আবেগের তাড়নায় টপলেস হয়ে নাচতে শুরু করেন৷ এটা অক্টোবরফেস্টে অপরাধ হিসেবে গণ্য হয় না৷ কিন্তু আপনি যদি এই পাগলামি ক্যামেরায় ধারণ করার চিন্তা করে থাকেন, তাহলে সাবধান! তাঁবুতে যা ঘটছে, তা তাঁবুতেই থাকতে দিন, ইন্টারনেটে নয়৷

 

 



আজকের কার্টুন

লাইফস্টাইল

আজকের বাংলার মিডিয়া পার্টনার

অনলাইন জরিপ

প্রতিবেশী রাষ্ট্র মিয়ানমার রোহিঙ্গা দেরকে অত্যাচার করে ফলে ২০১৭ তে অগাস্ট ২৫ থেকে সেপ্টেম্বর পর্যন্ত ১ মাসে ৫ লক্ষ্য রোহিঙ্গা জাতিগোষ্ঠী বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছে, আপনি কি মনে করেন বাংলাদেশ শরণার্থী দেরকে আবার ফিরে পাঠিয়ে দিক?

 হ্যাঁ      না      মতামত নেই    

সংবাদ আর্কাইভ