১৬ অক্টোবর ২০১৮ ইং
সাপ্তাহিক আজকের বাংলা - ৭ম বর্ষ ৪০সংখ্যা: বার্লিন, সোমবার ০১অক্ট–০৭অক্ট ২০১৮ # Weekly Ajker Bangla – 7th year 40 issue: Berlin, Monday 01Oct-07Oct 2018

‘উত্তর কোরিয়া পরিদর্শকদের প্রবেশের অনুমতি দিয়েছে'

কিম রাশিয়া ও চীনের শীর্ষ নেতাদের সঙ্গেও বৈঠক করতে চলেছেন

প্রতিবেদকঃ DW তারিখঃ 2018-10-07   সময়ঃ 00:17:00 পাঠক সংখ্যাঃ 9

পরমাণু নিরস্ত্রীকরণের লক্ষ্যে কিম জং উন আন্তর্জাতিক পরিদর্শকদের প্রবেশের অনুমতি দিয়েছেন বলে জানিয়েছেন মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী৷ কিম রাশিয়া ও চীনের শীর্ষ নেতাদের সঙ্গেও বৈঠক করতে চলেছেন৷

পরমাণু নিরস্ত্রীকরণের ক্ষেত্রে উত্তর কোরিয়া সত্যি কতটা আন্তরিক, তা নিয়ে বার বার প্রশ্ন উঠছে৷ গত জুন মাসে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ও উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং উন সিঙ্গাপুরে সরাসরি এ বিষয়ে আলোচনা করলেও কার্যক্ষেত্রে তেমন অগ্রগতি লক্ষ্য করা যাচ্ছে না৷ দুই পক্ষের মধ্যে এতকাল উচ্চ পর্যায়ে আলোচনাও বার বার স্থগিত রাখা হয়েছে৷

এমন প্রেক্ষাপটে মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও সোমবার জানালেন, উত্তর কোরিয়ার নেতা সে দেশের পরমাণু ও ক্ষেপণাস্ত্র স্থাপনায় আন্তর্জাতিক পরিদর্শকদের প্রবেশের অনুমতি দিতে প্রস্তুত৷ রবিবার তিনি পিয়ং ইয়ং সফর করে কিম-এর সঙ্গে এ বিষয়ে আলোচনা করেছেন৷ তাঁদের মধ্যে বোঝাপড়া অনুযায়ী, দুই পক্ষের মধ্যে খুঁটিনাটি বিষয়গুলি নিয়ে বোঝাপড়া হলেই পরিদর্শকরা সে দেশের একমাত্র সরকারি পরমাণু স্থাপনায় প্রবেশ করতে পারবেন৷

পম্পেও আরও জানিয়েছেন, কিম ও ট্রাম্পের মধ্যে প্রস্তাবিত দ্বিতীয় শীর্ষ বৈঠকের দিনক্ষণ নিয়েও অগ্রগতি হচ্ছে৷ উল্লেখ্য, প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প উত্তর কোরিয়ার নেতাকে হোয়াইট হাউসে আলোচনার জন্য আমন্ত্রণ জানিয়েছিলেন৷ এক টুইট বার্তায় পম্পেও জানিয়েছেন যে, তিনি বেইজিং সফর করে উত্তর কোরিয়ার ‘চূড়ান্ত ও সম্পূর্ণ যাচাইযোগ্য' পরমাণু নিরস্ত্রীকরণের লক্ষ্যে কাজ করতে চান৷

আন্তর্জাতিক মঞ্চে আরো সক্রিয় হয়ে উঠছেন কিম জং উন৷ শুধু অ্যামেরিকা নয়, চীন ও রাশিয়ার সঙ্গেও উচ্চ পর্যায়ে যোগাযোগ বাড়াচ্ছেন তিনি৷ দক্ষিণ কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট মুন জে ইন বলেন, কোরীয় উপদ্বীপে উত্তেজনা কমাতে কূটনৈতিক উদ্যোগের আওতায় কিম অদূর ভবিষ্যতেই চীন ও রাশিয়ার শীর্ষ নেতাদের সঙ্গে সাক্ষাৎ করবেন৷ উল্লেখ্য, রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুটিন এর আগেই কিমকে মস্কো সফরের জন্য আমন্ত্রণ জানিয়েছিলেন৷ এমন কূটনৈতিক তৎপরতার আওতায় উত্তর কোরিয়ার উপ-পররাষ্ট্রমন্ত্রী চো সোন হুই শনিবার বেইজিং সফর করেছেন৷ এরপর তিনি মস্কো সফর করে রাশিয়ার সরকারের প্রতিনিধিদের সঙ্গে আলোচনা করবেন৷ অবশেষে এক ত্রিপাক্ষিক আলোচনারও পরিকল্পনা রয়েছে৷

এমনকি জাপানের প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবে-র সঙ্গেও উত্তর কোরিয়ার নেতার আলোচনার সম্ভাবনা রয়েছে বলে মনে করেন দক্ষিণ কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট৷ উল্লেখ্য, তিনি এই নিয়ে তিন বার কিম জং উনের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেছেন৷ কিম জং উন চলতি বছরে তিন বার বেইজিং সফর করে চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং-এর সঙ্গে বৈঠক করেছেন৷ এবার শি পিয়ং ইয়ং সফর করবেন বলে ইঙ্গিত পাওয়া যাচ্ছে৷

এসবি/এসিবি (রয়টার্স, এএফপি)



আজকের কার্টুন

লাইফস্টাইল

আজকের বাংলার মিডিয়া পার্টনার

অনলাইন জরিপ

প্রতিবেশী রাষ্ট্র মিয়ানমার রোহিঙ্গা দেরকে অত্যাচার করে ফলে ২০১৭ তে অগাস্ট ২৫ থেকে সেপ্টেম্বর পর্যন্ত ১ মাসে ৫ লক্ষ্য রোহিঙ্গা জাতিগোষ্ঠী বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছে, আপনি কি মনে করেন বাংলাদেশ শরণার্থী দেরকে আবার ফিরে পাঠিয়ে দিক?

 হ্যাঁ      না      মতামত নেই    

সংবাদ আর্কাইভ